Tuesday, April 23, 2024
প্রচ্ছদখুলনা বিভাগকুষ্টিয়াএকজন আলোর বাতিঘর কুষ্টিয়ার বাবু সন্তোষ কুমার দে

একজন আলোর বাতিঘর কুষ্টিয়ার বাবু সন্তোষ কুমার দে

Published on

জীবনের এই প্রান্তে তিনি কেমন আছেন, খোঁজ নেন তার অগণিত আলোকিত শিক্ষার্থীরা। যার জ্ঞানের আলোয় আলোকিত হয়ে আজ প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছুটে চলেছেন অনেকেই। সবার কাছে তিনি আদর্শ শিক্ষক। বয়সের ভারে আজ নুয়ে পড়েছেন এই প্রবীণ শিক্ষক সন্তোষ কুমার দে।

এলাকায় তিনি একজন আদর্শ শিক্ষক হিসেবে পরিচিত। সারাটা দিন কাটে এখন খবরের কাগজ পড়ে আর টেলিভিশনের সংবাদ শুনে। শরীর সুস্থ থাকলে একটু হাটাহাটিও করেন বাড়ির ভেতর। দেশজুড়ে রয়েছে তার অসংখ্য শিক্ষার্থী, বন্ধু-বান্ধব আর শুভাকাঙ্ক্ষী।

১৯২৯ সালে কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার খন্দকবাড়ীয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন বাবু সন্তোষ কুমার দে (৯০)। পিতার নাম মৃত শরৎ চন্দ্র দে। ব্যাক্তিগত জীবনে তিনি ১ ছেলে ও ২ কন্যা সন্তানের জনক।

প্রাথমিকে তিনি (১ম-৬ষ্ঠ) শ্রেণী মিরপুর এম ই স্কুল, ভেড়ামারার চণ্ডিপুর জে কে ইন্সটিটিউশন থেকে (৭ম-১০ম) শ্রেণী, ঐতিহ্যবাহী কুষ্টিয়া হাই স্কুলে থেকে ১৯৪৫ সালে এসএসসি পাশ করে ভর্তি হন ভারতের নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগর কলেজে। সেখান থেকে ১৯৪৭ সালে এইচএসসি ও ১৯৪৯ সালে বিএ পাশ করেন। ১৯৪৯ সালে তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে এম এ সম্মান শ্রেণিতে ভর্তি হলেও শেষ করা হয়নি।

১৯৫১ সালে মাত্র ৬০ টাকা বেতনে সহকারী শিক্ষক হিসাবে মিরপুর হাইস্কুলে কর্মজীবন শুরু করেন। এ সময় প্রধান শিক্ষক ছিলেন এম এ ওয়াদুদ। ১৯৭২ সালে তিনি রাজশাহী টিচার্স ইন্সটিটিউশন থেকে বিএড করেন। ১৯৯২ সালে তিনি বর্ণাঢ্য কর্মজীবন থেকে অবসরে যান।

আগে মিরপুর থেকে শিক্ষার্থীদের এসএসসি পরীক্ষা দিতে কুষ্টিয়ায় যেতে হতো। তারপর অনেক চেষ্টার পর আমার হাত দিয়ে মিরপুরে পরিক্ষাকেন্দ্র হয় ১৯৮০ সালে। পরিক্ষাকেন্দ্র আনতে খুব কষ্ট করতে হয়েছিলো আমাকে।

বন্ধুদের খুঁজে বেড়াই প্রতিদিনি কিন্তু আর কাউকেই দেখি না। তাই মাঝে মাঝে মনটা একটু খারাপ হয়। নিঃসঙ্গ জীবন কাটে অনেকটা সময়।

শিক্ষকতা পেশায় কেন আসলেন এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমার আগে থেকেই শিক্ষকতা পেশা ভালো লাগতো। শিক্ষকতা আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ অর্জন ও পেশা। এই পেশায় ছিলাম বলে আজও মানুষ আমাকে খোঁজে।

আমার অনেক ছাত্ররা অনেক জায়গায় আছে। সবার কথাতো আর মনে নেই। সবাই আমার খোঁজখবর নেওয়ার হয়তো সময় পায় না। কিন্তু আমি জানি তারা আমাকে স্মরণ করে।

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

কুষ্টিয়ায় স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে হোটেলে, কলেজছাত্রীর মৃত্যুর পর যুবক আটক

কুষ্টিয়ায় একটি আবাসিক হোটেলে শয্যা বিশ্বাস (১৮) নামে এক কলেজছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায়...

ব্রাজিলের পতাকা টাঙাতে গিয়ে কুষ্টিয়ার মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সুপারি গাছে ব্রাজিলের পতাকা টাঙাতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে মিঠু শেখ (১৪) নামে...

যশোর বোর্ডে পাসের হার ৯৫% | কুষ্টিয়ায় শীর্ষে জিলা স্কুল, জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৪৩ জন

মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফলে এ বছর যশোর শিক্ষা বোর্ডে জিপিএ-৫ প্রাপ্তির সব রেকর্ড ভঙ্গ করেছে।...