Tuesday, April 23, 2024
প্রচ্ছদকুষ্টিয়ামিরপুরহাজারে ২’শ টাকা না দেয়ায় লোন মেলেনি ওদের !

হাজারে ২’শ টাকা না দেয়ায় লোন মেলেনি ওদের !

Published on

গরীব কৃষক লোন নিতে গেলেও দিতে হবে ঘুষ। তাও আবার হাজারে ২০০ টাকা করে। ত্রিশ হাজার টাকা লোন নিতে হলে ঘুষ হিসাবে দিতে হবে প্রত্যেককে ৬ হাজার টাকা করে। ঘুষ দিতে রাজি না হওয়ায় ৩০ জনের কাউকেই লোন দেয়নি পল্লী জীবিকরণ প্রকল্প কার্যালয়ের কর্মকর্তা। এমনটাই অভিযোগ ভুক্তভূগীদের।

সোমবার তাদের প্রত্যেককেই লোন নিতে আসে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার পল্লী প্রগতি প্রকল্প কার্যালয়ে। তবে সকলকে হতাশ হয়েই ফিরতে হয়েছে।

জানা যায়, কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার ১১৫টি সমিতির মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকা করে ঋণ প্রদান করে পল্লী জীবি করণ প্রকল্প এর মাধ্যমে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি)। এমন একটি সমিতির মাধ্যমে প্রায় ১৮ বছর ধরে চলে ঋণ গ্রহণ ও পরিশোধ করে আসছে উপজেলার চিথলিয়ার ৩০ কৃষক পরিবার। নিয়মিত ঋণ পরিশোধ করেও তারা এবছর ঋণ পায়নি বলে অভিযোগ করছেন। সেই সাথে তাদের অভিযোগ প্রকল্পের কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক এবং চিথলিয়া এলাকার ইনচার্জ আব্দুল মতিন তাদের কাছ থেকে এক হাজার টাকায় ২’শ টাকা দাবী করে। তারা টাকা দিতে অস্বীকার করায় তাদের ঋণ দেয়নি।

পল্লী জীবি করণ প্রকল্পের চিথলিয়া সমিতির প্রধান জাহানারা খাতুন অভিযোগ বলেন, আমরা ১৮ বছর ধরে এই সমিতির সাথে রয়েছি। প্রতিবছর আমরা ঋণ নিয়ে কৃষি কাজ করি, গবাদী পশু পালন করি। বছর শেষে একবারে সেই টাকা পরিশোধ করি। তবে এবছর ম্যানেজার আব্দুর রাজ্জাক হাজারের মুখে দুইশত টাকা করে চাইছে। না দিলে ঋণ দেবে না। আমরা ৩০ জন সদস্য রয়েছি আমাদের সকলের ক্ষেত্রে একই অবস্থা। আমরা সারের পা পর্যন্ত ধরেছি তবে লোন দেয়নি।

রাশিদা খাতুন ও হাসি খাতুন জানান, আমরা যদি এক হাজারে যদি ২০০ টাকা করে দিতে হয়। তাহলে আমারা ২৬ হাজার টাকা করে পাবো। সেই সাথে বছরে সুদ হিসাবে ৭ হাজার টাকা করে দিতে হয়। এই লোনটা পেলে আমাদের কৃষিকাজ করা ভালো হবে।

আরেকজন সেফালী খাতুন জানান, আমরা একমাস আগে একযোগে ৩০জনই ঋণ পরিশোধ করেছি। আমাদের এক সপ্তাহের মধ্যে নতুন ঋণ দেওয়া কথা। তবে এক মাস পার হয়ে গেলেও আমরা ঋণ পায়নি। প্রতি সপ্তাহে আমরা আসি আর ঘুরে যায়। ঋণের টাকা পেলে পরিবারের স্বচ্ছলতা ফিরতো মর্জিনা খাতুনের।

তিনি জানান, এই টাকা পেলে আমি পাখি ভ্যান কিনতাম। তা দিয়ে আমার সংসার চলতো। তবে ঘুষ না দেওয়ায় ঋণ দেয়নি ম্যানেজার।

পল্লী জীবি করণ প্রকল্পের কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক জানান, আমরা ৩০ জনের কাউকেই এবছর ঋণ প্রদান করিনি। তবে তাদের কাছ থেকে কোন টাকা দাবী করিনি। তারা সময় মতো ঋণ পরিশোধ করে না। এজন্য ঋণ দেয়নি।

এ ব্যাপারে বিআরডিবি’র উপ-পরিচালক ফিরোজ আহম্মেদ জানান, এমন কোন অভিযোগ আমাদের কাছে আসেনি। যদি আসে তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

টিউশনি করে গোল্ডেন এ প্লাস পেলেন কুষ্টিয়ার জমজ দুই বোন

সংসারের একমাত্র উপার্জনক্ষম বাবা দীর্ঘদিন ধরে মানসিক রোগী। টিউশনি করে কোন রকমে সংসার চালাচ্ছেন...

ভারতীয় সিরিয়াল ‘সিআইডি’ দেখে কুষ্টিয়ার ফুল ব্যবসায়ী আবু তৈয়ব হত্যার পরিকল্পনা

কুষ্টিয়ার মিরপুরে ফুল ব্যবসায়ী আবু তৈয়ব (৫৪) হত্যার পর দ্রুততার সাথে রহস্য উদঘাটন করেছে...

কুষ্টিয়ার মিরপুরে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ২

কুষ্টিয়ার মিরপুরের কাতলামারী বাজার থেকে ইয়াবাসহ টুটুল হোসেন (২২) ও তৌফিক রানা সিয়াম (২০)...