Saturday, June 22, 2024
প্রচ্ছদবিশ্বমধ্যপ্রাচ্যবাসে বিমান হামলা: সৌদি জোটের ‘ভুল’ স্বীকার

বাসে বিমান হামলা: সৌদি জোটের ‘ভুল’ স্বীকার

Published on

অবশেষে ‘ভুল’ স্বীকার করল সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট। এখন তারা বলছে, ইয়েমেনে একটি বাসে রক্তক্ষয়ী বিমান হামলার ক্ষেত্রে ‘ভুল’ হয়েছিল। এ জন্য তারা ‘দুঃখিত’। বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে জানানো হয়, গত ৯ আগস্ট ইয়েমেনের উত্তরাঞ্চলীয় সাদা প্রদেশে একটি বাসে সৌদি জোট বিমান হামলা চালালে ৪০ জনের বেশি শিশু নিহত হয়। আহত হয় অনেকে। এই বিমান হামলার ঘটনায় সৌদি জোট ভুল স্বীকার করল।

হুতি বিদ্রোহী-নিয়ন্ত্রিত প্রদেশটিতে ওই বিমান হামলার ঘটনাটি বিশ্বজুড়ে সমালোচনা ও নিন্দার জন্ম দেয়। চাপে পড়ে সৌদি জোট। প্রথমে তারা বিমান হামলাটিকে ‘বৈধ ব্যবস্থা’ বলেই দাবি করে। পরে তারা এই অবস্থান থেকে সরে আসে। হামলার ঘটনাটি তদন্তের ঘোষণা দেয় সৌদি জোট।

গতকাল শনিবার এক বিবৃতিতে সৌদি জোট তাদের ভুল স্বীকার করে। বিবৃতিতে বলা হয়, হামলায় ভুলের জন্য যে বা যারা দায়ী, তাদের জবাবদিহির মুখোমুখি করা হবে।

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এসপিএতে প্রচারিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, ভুলের বিষয়ে জোটের জয়েন্ট ফোর্সেস কমান্ড দুঃখ প্রকাশ করেছে। হতাহত হওয়ার ঘটনায় তারা সমবেদনা জানিয়েছে। শোক প্রকাশ করেছ। ভুক্তভোগীদের পরিবারের প্রতি সংহতি জানিয়েছে।

সৌদি জোট বলেছে, হামলায় ভুক্তভোগী পরিবারগুলোকে ক্ষতিপূরণ দিতে তারা ইয়েমেন সরকারের সঙ্গে কাজ করবে। এ ছাড়া ইয়েমেনে অভিযানের নিয়মকানুন মূল্যায়ন করবে।

তবে জোটের এক মুখপাত্রের ভাষ্য, তাঁদের নিজস্ব তদন্ত অনুযায়ী, এক হুতি নেতাকে লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালানো হয়েছিল।

জোটের জয়েন্ট ইনসিডেন্টস অ্যাসেসমেন্ট টিমের (জেআইএটি) প্রধান লে. জেনারেল মানসুর আল-মানসুরের ভাষ্য, তদন্তে দেখা গেছে, বাসটিতে হুতি নেতা ও যোদ্ধাদের বহন করা হচ্ছিল। তাই হামলাটি বৈধ সামরিক লক্ষ্যবস্তু ছিল। কিন্তু হামলার স্থানটির কারণে এত ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

জোটের দাবি, তারা ইয়েমেনে কখনোই ইচ্ছাকৃতভাবে বেসামরিক লোকজনকে হামলার লক্ষ্যবস্তু করেনি।
তবে মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোর অভিযোগ, সৌদি জোট ইয়েমেনে মার্কেট, স্কুল, হাসপাতাল ও আবাসিক এলাকায় নির্বিচারে বোমা হামলা চালিয়ে আসছে।

ইয়েমেনে চলমান সংঘাতে প্রায় ১০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। আহত প্রায় ৫৫ হাজার মানুষ। হতাহত ব্যক্তিদের দুই-তৃতীয়াংশই বেসামরিক লোকজন। বেসামরিক লোকদের প্রাণহানির জন্য প্রধানত সৌদি জোটের বিমান হামলাকেই দায়ী করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনার। পাশাপাশি হুতিদেরও দায় আছে।

ইয়েমেনের বর্তমান পরিস্থিতিকে বিশ্বের সবচেয়ে বাজে মানবসৃষ্ট মানবিক সংকট বলে বর্ণনা করেছে জাতিসংঘ। গৃহযুদ্ধে ইয়েমেনে লাখো মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে। দেশটি এখন দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে। সেখানে জরা-রোগ-শোক ছড়িয়ে পড়েছে। দেশটির জনসংখ্যার ৭৫ শতাংশের এখন মানবিক সহায়তা প্রয়োজন।

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

মক্কা মদিনার দুই মসজিদে ঈদের নামাজ, অংশ নিতে পারবেন না মুসল্লিরা

সৌদি আরবের মক্কা এবং মদিনার পবিত্র দুই মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজ হলেও সাধারণ জনগণ...

কুয়েতে নারী গৃহকর্মী বেচাকেনার বিশাল অনলাইন ‘দাসীর বাজার’

বিবিসির অনুসন্ধান: সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে নারী শ্রমিকদের ওপর নির্মম নির্যাতনের চিত্র দিন দিনই...

সৌদি আরব থেকে গণহারে ফিরে আসছেন বাংলাদেশি শ্রমিকরা: নেপথ্য কারণ কি ‘ফ্রি ভিসা’

সৌদি আরব থেকে বিপুল সংখ্যায় দেশে ফিরে আসছেন বাংলাদেশি শ্রমিকরা। নির্যাতনের শিকার হবার অভিযোগ...