Thursday, July 18, 2024
প্রচ্ছদখুলনা বিভাগকুষ্টিয়াছেলেধরা সন্দেহে কুষ্টিয়ায় ৮ ঘণ্টায় ৬ জনকে গণপিটুনি

ছেলেধরা সন্দেহে কুষ্টিয়ায় ৮ ঘণ্টায় ৬ জনকে গণপিটুনি

Published on

ছেলেধরা সন্দেহে কুষ্টিয়ায় আট ঘণ্টায় ছয়জন গণপিটুনি শিকার হয়েছেন। এদের মধ্যে তিনজন রয়েছে মানসিক ভারসাম্যহীন।

সবাইকে পুলিশ গণপিটুনি দেয়ার সময় উদ্ধার করেছে। এসব ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে আটক করেছে পুলিশ।

ছেলেধরা সন্দেহে সোমবার জেলার তিন স্থানে মানসিক ভারসাম্যহীন মহিলা ও লালনভক্তসহ তিনজন গণপিটুনির শিকার হয়েছেন।

সোমবার সকালে জেলার দৌলতপুরে জামাই বাড়ি বেড়াতে আসা হাসিনা খাতুন (৬০) নামে এক মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে ছেলেধরা সন্দেহে পিটিয়েছে এলাকাবাসী। ওই নারীর বাড়ি ময়মনসিংহ জেলায়।

মারপিটের পর পুলিশ উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে স্বজনদের কাছে তাকে হস্তান্তর করেছে।

দৌলতপুর থানাপাড়ায় বাড়ি ওই নারীর জামাই রনি জানান, গত রমজানের ঈদের আগে আমার শাশুড়ি বেড়াতে আসেন। তার মাথায় সমস্যা আছে। রাস্তাঘাট ঠিক চিনতে পারে না। সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে বাইরে এসে পথ ভুলে যায়। এরপর স্থানীয়রা ছেলেধরা সন্দেহে তাকে মারপিট করেছে।

একই দিন সদর উপজেলার আলামপুর কাথুলিয়া এলাকার লালনভক্ত আনিছুর রহমানের পোশাক দেখে সন্দেহ হলে এলাকাবাসী গণপিটুনি দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তাকে উদ্ধার করে এবং এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত এক যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

সোমবার দুপুরের দিকে মিরপুর উপজেলার সাহেবনগর বহলবাড়ীয়া এলাকা থেকে এক পাগল ও ধুবাইল ইউনিয়ন পরিষদের সামনে থেকে এক পাগলিকে উদ্ধার করে পুলিশ।

এছাড়া জেলার সদর উপজেলার হাটশ-হরিপুর ইউনিয়নে কালা চাঁদ নামে এক মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধাকে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি দেয় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে যেয়ে তাকে উদ্ধার করে। গণপিটুনির শিকার কালা চাঁদের বাড়ি টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর উপজেলায়।

শহর ওয়ার্ড কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি এসএম কাদেরী শাকিল বলেন, একজনকে সন্দেহ হলেই পেটাতে হবে- এটা কোনো আইনকানুনের মধ্যে পড়ে না। আইন বলেও তো একটা কথা আছে। সন্দেহ হতেই পারে। সেক্ষেত্রে তাকে ধরে পুলিশের হাতে দিলেই হয়। অথবা এলাকার মাতব্বরের কাছে নিয়ে যান, তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করুন।

তিনি বলেন, মনে রাখা দরকার, যে কেউ এরকম ঘটনার শিকার হতে পারে। এই সমস্যাকে এখন সামাজিকভাবেই মোকাবিলা করতে হবে।

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত বলেন, গত আট ঘণ্টায় গণপিটুনি দেয়ার সময় পুলিশ ৬ জনকে উদ্ধার করেছে। গুজব রটিয়ে গণপিটুনি বন্ধ করতে আমরা সচেতনতামূলক পোস্টার করেছি। পত্রপত্রিকাসহ বিভিন্নভাবে প্রচারনা চালাচ্ছি। পাশাপাশ পুলিশ সদস্যদের টহল বাড়ানো হয়েছে।

তিনি সব থানার ওসিদের স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সুধিসমাজ ও কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে আলোচনা করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

কুষ্টিয়ায় স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে হোটেলে, কলেজছাত্রীর মৃত্যুর পর যুবক আটক

কুষ্টিয়ায় একটি আবাসিক হোটেলে শয্যা বিশ্বাস (১৮) নামে এক কলেজছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায়...

ব্রাজিলের পতাকা টাঙাতে গিয়ে কুষ্টিয়ার মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সুপারি গাছে ব্রাজিলের পতাকা টাঙাতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে মিঠু শেখ (১৪) নামে...

যশোর বোর্ডে পাসের হার ৯৫% | কুষ্টিয়ায় শীর্ষে জিলা স্কুল, জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৪৩ জন

মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফলে এ বছর যশোর শিক্ষা বোর্ডে জিপিএ-৫ প্রাপ্তির সব রেকর্ড ভঙ্গ করেছে।...