Tuesday, December 5, 2023
প্রচ্ছদবাংলাদেশখুলনা বিভাগখুলনা বিভাগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২০০০

খুলনা বিভাগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২০০০

Published on

খুলনা বিভাগে নতুন করে ১৪৮ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এই বিভাগে করোনায় সংক্রমিত হিসেবে শনাক্ত হলেন ১ হাজার ৯২৫ জন।

একই সঙ্গে কোভিডে খুলনা ও চুয়াডাঙ্গায় আরও দুজনের মৃত্যু যোগ হয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৬। আজ শুক্রবার খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।

আক্রান্ত রোগীদের প্রায় ৫৩ শতাংশই শনাক্ত হয়েছেন গত ১০ দিনে। ৯ জুন বিভাগে রোগী ছিল ৯১৭ জন। এ বিভাগে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হন ১৯ মার্চ, চুয়াডাঙ্গায়।

স্বাস্থ্য বিভাগের উপাত্ত বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, বিভাগে যথাক্রমে যশোর, খুলনা ও চুয়াডাঙ্গার পর চতুর্থ জেলা হিসেবে কুষ্টিয়ায় শনাক্ত রোগী ১০০ ছাড়িয়ে যায়। তবে কয়েক দিন ধরে খুলনা ও কুষ্টিয়ায় ব্যাপক হারে রোগী বাড়ছে। ভৌগোলিক দিক থেকে বিভাগের মোটামুটি দুই প্রান্তের এই দু্ই জেলায় এখন রোগীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। এই চার জেলার বাইরে ঝিনাইদহ ও বাগেরহাটে রোগীর সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১০০ আর সাতক্ষীরা জেলায় রোগী ১০০ ছুঁইছুঁই করছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, বিভাগে নতুন সংক্রমিত হওয়া ১৪৮ জনের মধ্যে খুলনা জেলায় ৮৩ জন, বাগেরহাটে ২ জন, সাতক্ষীরায় ১০ জন, যশোরে ৬ জন, ঝিনাইদহে ৪ জন, মাগুরায় ২ জন, নড়াইলে ২ জন, কুষ্টিয়ায় ৩৪ জন ও চুয়াডাঙ্গায় ৫ জন রয়েছেন।

এ নিয়ে খুলনায় মোট সংক্রমিত হয়েছেন ৬৭২ জন, বাগেরহাটে ১০২ জন, সাতক্ষীরায় ৯৬ জন, যশোরে ২৮৯ জন, ঝিনাইদহে ১২৩ জন, মাগুরায় ৫৮ জন, নড়াইলে ৭৩ জন, কুষ্টিয়ায় ৩০৭ জন, চুয়াডাঙ্গায় ১৬৯ জন ও মেহেরপুরে ৩৬ জন। বিভাগে সংক্রমিত ব্যক্তিদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৫১৬ জন।

বিভাগে এখন পর্যন্ত কোভিড–১৯ এ মৃত্যু হয়েছে ২৬ জনের। গত মে পর্যন্ত এ সংখ্যা ছিল ১০। বাকি ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে জুনে। এর মধ্যে গত সাত দিনেই ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে খুলনায় সবচেয়ে বেশি ১০ জন এবং মেহেরপুরে ৩ জন। এ ছাড়া বাগেরহাট, ঝিনাইদহ, মাগুরা, নড়াইল, কুষ্টিয়া ও চুয়াডাঙ্গায় ২ জন করে এবং যশোরে মারা গেছেন ১ জন।

খুলনা জেলায় আক্রান্ত ৬৭২ জন রোগীর মধ্যে ৪৯৫ জনই নগরের। অর্থাৎ জেলার প্রায় ৭৪ শতাংশ রোগী খুলনা নগর এলাকার বাসিন্দা।

খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক রাশেদা সুলতানা বলেন, মানুষ এখনো স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না, ঘরে থাকতে চাইছেন না। সে জন্য পরিস্থিত খারাপের দিকে যাচ্ছে। খুলনা বিভাগের অবস্থা ভালোই ছিল। গত ১০ দিনে সংক্রমণের হার এতটা বেড়েছে যে সেটা এখন গভীর উদ্বেগের মধ্যে ফেলেছে। বিশেষ করে খুলনা জেলায় অবস্থা ভয়াবহ হয়ে পড়েছে।

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

কুষ্টিয়া করোনা আপডেট: আক্রান্ত হাজার ছাড়াল | নতুন শনাক্ত ৪৫ জন

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাব থেকে গত ২৪ ঘন্টায় কুষ্টিয়া জেলার ১২৮ টি রিপোর্ট...

কুষ্টিয়া দৌলতপুরের ইউএনও করোনা আক্রান্ত

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। রবিবার কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবের...

করোনা: কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে অগ্রণী ব্যাংক লকডাউন

এক সপ্তাহে ব্যাংকের পাঁচ কর্মকর্তা-কর্মচারী করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় কুষ্টিয়ায় অগ্রণী ব্যাংকের কুমারখালী শাখা লকডাউন...