Thursday, July 18, 2024
প্রচ্ছদকুষ্টিয়াকুষ্টিয়া সদরকুষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টির আয়োজনে পল্লীবন্ধু এরশাদের চেহলাম অনুষ্ঠিত

কুষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টির আয়োজনে পল্লীবন্ধু এরশাদের চেহলাম অনুষ্ঠিত

Published on

জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা পল্লীবন্ধু হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদের চল্লিশা উপলক্ষে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসুচির অংশ হিসেবে ৩১ শে আগষ্ট শনিবার কুষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টির আয়োজনে (চেহলাম) কোরআন তেলোয়াত, আলোচনা, দোয়া মাহফিল ও কাঙালী ভোজের আয়োজন করা হয়।

দুপুর ১২টায় কুষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টির কার্যালয়ে পবিত্র কোরআন তেলোয়াতের মধ্য দিয়ে শুরু হয় আলোচনা সভা। কুষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টির সংগ্রামী সভাপতি নাফিজ আহম্মেদ খান টিটুর সভাপতিত্বে দোয়া অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় সেচ্ছাসেবক দলের প্রতিষ্ঠাতা রেজাউল করিম রেজা, জেলা বিএনপির যুগ্ন সাধারন সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম রিন্টু ,জেলা যুবদলের যুগ্ন সম্পাদক শামসুদদোহা লাল্টু, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সালেহীন সেলিম জেলা জাতীয় পার্টির সহ সভাপতি এ্যাড: মোনোহর আলী বেগ, পারভেজ মাজমাদার,সাফায়েত হোসেন স্বপন, মর্জিনা বেগম, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম চাঁদু,রিনা নাসরিন, সাবেক দপ্তর সম্পাদক আব্দুল হামিদ, সভাপতির উপদেষ্টা তানভির আহম্মেদ শাওন, সাংগাঠনিক সম্পাদক এস এম আনোয়ার, জেলা যুব সংহতির সাধারন সম্পাদক কাজী আব্দুল বাকের,ভেড়ামার উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ডা: সুজা উদ্দিন ।

এসময় আলোচনা সভা শেষে পল্লীবন্ধু এরশাদ সহ দলের প্রয়াত নেতাকর্মীদেও মাগফিরাত কামনায় ও দেশবাসীর জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়। সভায় সভাপতি তার বক্তব্য বলেন, দেশের মানুষ যেদিকেই তাকাবে সেদিকেই আমার উন্নয়নের ছোঁয়া দেখতে পাবে। এ কথাটি যিনি বলেছিলেন, তিনি পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি আজ আমাদেও মাঝে নেই। কিন্তু বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে দক্ষ ও সফল রাষ্ট্রনায়কের সম্মানে অভিহিত এই ব্যক্তিত্বকে বলা হয় নতুন বাংলার স্বপ্নদ্রষ্টা। ক্ষমতাসীন হয়েই তিনি বললেন, ৬৮ হাজার গ্রাম বাঁচলে বাংলাদেশ বাঁচবে। বাংলার মানুষ তাই তাঁকে স্বতঃস্ফুর্তভাবে উপাধী দিয়েছে পল্লীবন্ধু। একজন দক্ষ প্রশাসক ও কবির স্বপ্ন একসঙ্গে একাকার হয়ে ছিলো বলেই তিনি হতে পেরেছেন গতিশীল, আধুনিক ও মানবতাবাদী মনের মানুষ। তিনি নিজের প্রজ্ঞা, জ্ঞান ও শিক্ষা দিয়ে গড়ে তুলতে চেয়েছেন নতুন বাংলাদেশ।

তাই তিনি বৃটিশ আমলের ঘুনেধরা প্রশাসন ভেঙ্গে দিয়ে সৃষ্টি করেন উপজেলা পদ্ধতি-জনগণের নির্বাচিত প্রশাসন ব্যবস্থা। যুগ-যুগান্তরের আমলাতান্ত্রিক ব্যবস্থা তিনি পরিবর্তন করেন। প্রশাসনকে বিকেন্দ্রীকরণ করেন। বাস্তবায়িত করেন যোগাযোগ, বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা, পল্লী উন্নয়ন, শিক্ষা-স্বাস্থ্য, ভূমি সংস্কার, টেলি যোগাযোগ নেটওয়ার্কের হাজার হাজার প্রকল্প।

এরমধ্যে কৃষি ও শিল্প উন্নয়নমুলক প্রকল্পের সংখ্যাই বেশী। এছাড়া সড়ক উন্নয়নসহ যোগাযোগের আধুনিকায়ন তো আছেই। রাষ্ট্রনায়ক এরশাদ, উন্নয়নের স্বপ্নদ্রষ্টা এরশাদ, নতুন বাংলাদেশের স্বাপ্নিক এরশাদ, মানব দরদী এরশাদ, শিক্ষা বিস্তারে এরশাদ, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান উন্নয়নে এরশাদ, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে এরশাদ, স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নয়নে এরশাদ, খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি কর্মসূচীতে এরশাদ, শ্রমিক-কর্মচারীদের কল্যানে এরশাদ, দুঃস্থ মানুষের প্রেমিক এরশাদ, ক্রীড়াঙ্গনে এরশাদ, সাংস্কৃতিক অঙ্গনে এরশাদ। এরশাদ এবং জাতীয় পার্টির শাসনামলের উন্নয়ন ও সুশাসন সম্পর্কে মহাকাব্য লিখে/ বলেও শেষ করা যাবে না। ইতিহাস সৃষ্টিকারী এই রাষ্ট্রনায়ক রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হয়ে দুই দফায় সাড়ে ছয় বছর 

কারাগারে আটক ছিলেন। কিন্তু তাঁর স্বপ্নে ছিলে দেশ ও জনগণের কল্যান সাধন। জেলখানার অন্ধ প্রকোষ্ঠে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়তেন- তবুও ভাবতেন দেশের কথা। দেশ যখন বিপন্ন, মানুষ যখন মানবেতরের চরম সীমায় পল্লীবন্ধু এরশাদ তখন জেলের জিঞ্জির ছিন্ন করে বেড়িয়ে এলেন। তিনি দেখলেন যে দেশকে তিনি সযতেœ সাজিয়েছিলেন সে দেশ ছিন্ন-ভিন্ন হয়ে গেছে। মানুষের সুখ-শান্তি সমৃদ্ধি ভেঙ্গে খানখান হয়ে যাচ্ছে। অর্থনৈতিক সাচ্ছন্দ্য বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে। জনগণের জানমালের নিরাপত্তা বলতে কিছুই থাকছেনা। কারামুক্ত পল্লীবন্ধু এরশাদ আর স্থির থাকতে পারলেন না। শুরু হলো আবার তাঁর যাত্রা। এ যাত্রা ভিন্ন আঙ্গিকে। হিংসা-হানাহানির রাজনীতির বিরুদ্ধে সুষ্ঠু স্থিতিশীল গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টির রাজনৈতিক যাত্রা শুরু করলেন পল্লীবন্ধু।

আবার এদেশে উন্নয়ন সমৃদ্ধির ধারা ফিরিয়ে আনা এবং জনগণের নিরাপত্তা-সুখ-শান্তি নিশ্চিত করার সংগ্রামে ব্রতি হলেন এদেশের ইতিহাসের সফল রাষ্ট্রনায়ক পল্লীবন্ধু এরশাদ। তিনি নিরলসভাবে পরিশ্রম করে যাচ্ছেন এদেশের দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোঁটানোর লক্ষ্যে। পল্লীবন্ধু এরশাদ কথার রাজনীতিতে বিশ্বাসী নন-তিনি কাজের রাজনীতিতে বিশ্বাস করেন। তাঁর অতীতের কর্মকান্ডের দিকে তাকালেই এ কথার প্রমাণ পাওয়া যাবে। এদেশের এমন কোন গ্রাম নেই -এমন কোন শহর নেই-যেখানে পল্লীবন্ধু এরশাদের উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। এখনো এই বাংলাদেশের যেদিকেই দৃষ্টি যাবে সেদিকেই দেখতে পাওয়া যাবে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের উন্নয়নের কর্মসূচী। নানা সমালোচনা থাকলেও ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় দেশ ও জনগণের কল্যাণে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেয়া উন্নয়ন কর্মকান্ড এবং গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক সংস্কার দেশের মানুষ দীর্ঘদিন মনে রাখবে সর্বস্তরের মানুষ বলে আমি মনে করি।

এসময় ভেড়ামারা উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারন সম্পাদক আলহাজ আমির হোসেন, ঝন্টু,জহরুল, হামিদ, মোমিন মদুরী বাপ্পী, সিরাজুল, মহির মন্ডল, আবু বক্কর, শাহ আলম, পিকলু, সিরাজ ডাক্তার , মো:মিজানুর রহমান মিন্টু , মন্জু মন্ডল সহ জেলা উপজেলার নেতা কর্মীবৃন্দ। অনুষ্ঠানের সার্বিক পরিচালনা করেন, কুষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ন সাধারন সম্পাদক গোলাম মোস্তফা ফরহাদ।

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

কুষ্টিয়ায় স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে হোটেলে, কলেজছাত্রীর মৃত্যুর পর যুবক আটক

কুষ্টিয়ায় একটি আবাসিক হোটেলে শয্যা বিশ্বাস (১৮) নামে এক কলেজছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায়...