Tuesday, December 6, 2022
প্রচ্ছদখুলনা বিভাগকুষ্টিয়াকুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চোর আতঙ্কে রোগী ও স্বজনরা

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চোর আতঙ্কে রোগী ও স্বজনরা

Published on

কুষ্টিয়া ২৫০শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডা: নাজিম উদ্দিনের রুমের সামনে মুহূর্তের মধ্যেই ভ্যানিটি ব্যাগের মধ্যে থাকা দুই হাজার টাকা উধাও। ব্যাগের চেইন খোলা। এমন অবস্থা দেখে হতবাক হয়ে পড়েন সেই মহিলাটি।

বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ডলি আক্তার তার বোনকে নিয়ে চিকিৎসকের রুমের ঢোকার সময়ে এমনি এঘটনা ঘটে।

তিনি জানান, আমার ব্যাগের মধ্যে থেকে দুই হাজার টাকা চুরি হয়ে গেছে। শিশু ও চোখের ডাক্তারের রুমের কাছে বেশি মানুষের জটলা ছিলো। কয়েকজন বলাবলি করেছিলো দুজনের মোবাইল ফোন চুরি হয়ে গেছে হাসপাতাল থেকে।

একজন মহিলা জানান, আমার মেয়েকে ডাক্তারের কাছে এনেছিলাম। টিকিট কাটার পর দেখি আমার সাইড ব্যাগের চেইন খোলা। বড় সাইড ব্যাগের মধ্যে ছোট আকৃতির ব্যাগে ৭শ টাকা রক্ষিত ছিলো। রোগী ও স্বজনদের নগদ অর্থ, মোবাইল সেট ও মূল্যবান জিনিসপত্র মুহূর্তের মধ্যে চুরি করে লাপাত্তা হচ্ছে চোরেরা।

জাহিদ নামের একজন জানান, চোরের উপদ্রবে আতঙ্কিত সকলেই। অবাঞ্ছিতদের প্রবেশে কড়াকড়ি, নিরাপত্তা প্রহরীদের নজরদারী বৃদ্ধি, বিনা প্রয়োজনে প্রবেশকারী সন্দেহজনকদের তল্লাশীর ব্যবস্থা করলে চোরের উপদ্রব কমবে।

সরকারি হাসপাতালগুলোতে সাধারণত্ব গরীব মানুষেরা আসে; তারা যদি চুরির মুখোমুখি হন, তাহলে নিঃস্ব হয়ে পড়েন অনেকেই।

সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানায়, কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের বহিঃবিভাগ, জরুরী বিভাগ, গাইনী বিভাগ, এক্স-রে ও প্যাথলজি বিভাগের সামনে এবং বিভিন্ন ওয়ার্ডে প্রায় প্রতিদিন কোথাও না কোথাও চুরির ঘটনা ঘটে। যেখানেই ভীড়, সেখানেই চোর।

এর আগে কতিপয় বোরখা পরিহিত অল্প ও মধ্য বয়সী মহিলা এ চুরির সাথে জড়িত ছিলো। তারা প্রতিদিনই হাসপাতালে ঢুকে বিভিন্ন জনাকীর্ণ স্থানে গিয়ে কৌশলে চুরি করে। এদের সাথে হাসপাতালের কতিপয় কর্মচারীর যোগসাজসও রয়েছে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছেন।

দায়িত্বশীল সূত্রটি জানায়, কখনো চোর ধরা পড়লে হাসপাতালের ওই সব কর্মচারীরাই এগিয়ে এসে শাস্তি দেবার অযুহাতে তাদের কৌশলে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।

দালাল, ওষুধ চুরি ও চিকিৎসকদের সম্পর্কে মিডিয়াতে নিউজ হলেও সব সময়েই চোরেরা থেকে যায় ধরা-ছোঁয়ার বাইরে। কয়েকদিন অভিযান চালিয়ে কয়েকজনকে ধরে শাস্তি দিলেই চোর নির্মূল করা সম্ভব বলে মনে করেন সুত্রটি।

সোহানুর রহমান নামের একজন বলেন, অসহায় ও নিরুপায় মানুষগুলোই হাসপাতালে আসেন, তাদের অর্থ ও মূল্যবান জিনিসপত্র চুরি করে তারা কতটা নির্দয় হতে পারে। এই হাসপাতাল প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষের যাতায়াত। এর মধ্যে চোর ধরার মতো পর্যাপ্ত সংখ্য প্রহরী না থাকলেও পোষাক পরা পুলিশরা যদি টহলে থাকে। তাহলে চোরেরা আতঙ্কিত বোধ করবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের এগিয়ে আসা উচিৎ বলে মনে করেন তিনি।

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরে গেল ২ প্রাণ

কুষ্টিয়া ভেড়ামারা উপজেলায় ট্রাকের চাপায় মোটরসাইকেল চালকসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। শনিবার (৩ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে...

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে পাইলিংয়ের সময় ক্রেন ছিড়ে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) নির্মাণাধীন দ্বিতীয় প্রশাসন ভবনের পাশে পাইলিংয়ের সময় মাথার আঘাত পেয়ে দুর্ঘটনাবশত...

এসএসসি পরীক্ষায় যশোর বোর্ডে প্রথম হলেন কুষ্টিয়ার শিক্ষার্থী নাজিফা

এ বছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় যশোর বোর্ডে প্রথম হয়েছে কুষ্টিয়া সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নাজিফা...

টিউশনি করে গোল্ডেন এ প্লাস পেলেন কুষ্টিয়ার জমজ দুই বোন

সংসারের একমাত্র উপার্জনক্ষম বাবা দীর্ঘদিন ধরে মানসিক রোগী। টিউশনি করে কোন রকমে সংসার চালাচ্ছেন...

আরও পড়ুন

এসএসসি পরীক্ষায় যশোর বোর্ডে প্রথম হলেন কুষ্টিয়ার শিক্ষার্থী নাজিফা

এ বছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় যশোর বোর্ডে প্রথম হয়েছে কুষ্টিয়া সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নাজিফা...

ব্রাজিলের পতাকা টাঙাতে গিয়ে কুষ্টিয়ার মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সুপারি গাছে ব্রাজিলের পতাকা টাঙাতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে মিঠু শেখ (১৪) নামে...

যশোর বোর্ডে পাসের হার ৯৫% | কুষ্টিয়ায় শীর্ষে জিলা স্কুল, জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৪৩ জন

মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফলে এ বছর যশোর শিক্ষা বোর্ডে জিপিএ-৫ প্রাপ্তির সব রেকর্ড ভঙ্গ করেছে।...