Thursday, May 23, 2024
প্রচ্ছদকুষ্টিয়াঅপরাধকুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে স্বামীকে নৌকা থেকে ফেলে দিয়ে চাঞ্চল্যকর হত্যার নেপথ্যের ঘটনা

কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে স্বামীকে নৌকা থেকে ফেলে দিয়ে চাঞ্চল্যকর হত্যার নেপথ্যের ঘটনা

Published on

কুষ্টিয়ায় শ্বশুর বাড়ি থেকে স্ত্রীকে নিয়ে নৌকা যোগে ফেরার পথে প্রবল স্রোতের মধ্যে স্ত্রী তার স্বামীকে নদীতে ফেলে হত্যার ঘটনারর পর বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য।

স্বামী সাঁতার জানে না নিশ্চিত হয়েই আগে থেকেই স্ত্রী বিলকিস স্বামীকে নদীতে ফেলে হত্যার পরিকল্পনা করে এবং এ পরিকল্পনা কার্যকর করতে যে কারনে ঘটনার ঠিক কয়েক সেকেন্ড আগে নৌকায় বসা স্বামী সাব্বিরের কোলে থেকে তার শিশু ছেলে নিশান কে নিয়ে নেন বিলকিসের মা। পাশেই ছিলো শ্যালক বাদল। এর পরই নৌকা ভর্তি যাত্রীদের সামনেই গত ১১ আগষ্ট দুপুরে স্বামী সাব্বির কে ধাক্কা দিয়ে নদীতে ফেলে দেয় স্ত্রী বিলকিস।

এ ঘটনার দুই দিন পর ১৩ আগষ্ট বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর চাপড়া এলাকার গড়াই নদীর চরের কাছে হতভাগ্য সাব্বিরের লাশ ভেসে উঠলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। এর আগেই ঘটনার দিন পুলিশ সাব্বিরের স্ত্রী বিলকিসকে আটক করে। এদিকে ঘটনার সময় সাব্বিরের শাশুড়ি ও শ্যালক নৌকায় থাকলেও তাদের নিরব ভূমিকাকেও ক্ষতিয়ে দেখছে পুলিশ। তবে এ ঘটনা নিয়ে এখনো কুষ্টিয়া জুরে নানা আলোচনা সমালোচনা চলছে।

ঘটনার পর গতদুই দিন ধরে সরেজমিনে সাব্বির ও তার শ্বশুর বাড়ির এলাকার বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে এই হত্যার চাঞ্চল্যকর নানা তথ্য। সাব্বিরের স্ত্রী বিলকিস আক্তার তুলি পরকীয়ায় জরিয়ে তার স্বামীকে হত্যা করেছে দাবি তার স্বামী সাব্বিরের পরিবারের। অপর দিকে সাব্বির মাদকাসক্ত যুবক এবং তার নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষা পেতেই স্ত্রী রাগে ক্ষোভে স্বামী কে নৌকা থেকে ফেলে দিয়েছে বলে দাবি স্ত্রী বিলকিসের পরিবারের।

জানাযায়, কুষ্টিয়ার দেওশলী পাড়ার এস এম সাইফ উদ্দিনের ছেলে সাব্বির হোসেনের সাথে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়ের চর বানিয়া পাড়ার আরজান আলীর মেয়ে বিলকিস আক্তার তুলির ৬ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের দাপত্য জীবন ভালোই কাটছিল। বিয়ের এক বছর পরেই তাদের সংসারে আসে এক কন্য সন্তান। তার নাম রাখা হয় নিভিয়া আক্তার নিভি। এর দুই বছর পরে আরেক পুত্র সন্তান হয়। নিভির নামের সাথে মিল রেখে নাম রাখা হয় নিশান। বিয়ের পরে সাব্বির কখনো দর্জির কাজ কখনো বা রাজমিস্ত্রির কাজ করে সংসার চালিয়ে আসছিল। এরই মাঝে সাব্বির নানা রকম নেশায় আসক্ত হয়ে পড়ে। এতে ঠিক মত কাজ কাম না করায় স্বামী স্ত্রীর মাঝে প্রায়ই বাকবিতণ্ডা হতো বলে জানান সাব্বিরের কয়েক জন প্রতিবেশী। আর এর জের ধরেই সাব্বিরকে তার স্ত্রী নৌকা থেকে ধাক্কা দিয়ে হত্যা করেছে বলে ধারণা ওই প্রতিবেশীদের।

সাব্বিরেরর ছোট ভাই সুইট জানান, তার ভাবি বিলকিস আক্তার তুলি প্রায়ই মোবাইলে অন্যদের সাথে দীর্ঘ সময় কথা বলতো এটা তার ভাই পছন্দ করতো না। এ নিয়ে প্রায়ই দুজনের মধ্যে ঝগড়া হতো। সে জানায়, ঢাকায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিলকিসের বড় ভাইকে দেখে ঘটনার দুইদিন আগে সকালে বিলকিস ও স্বামী সাব্বির বাড়িতে ফিরে আসে। দুপুরে বিলকিস তার মায়ের বাড়িতে হরিপুরে যাওয়ার জন্য বার বার সাব্বির কে বলতে থাকে। পরে তরিঘরি করে খেতে বসে সাব্বিরসহ ৩ ভাই। এ সময় তাদের ভাবি বিলকিস স্বামী সাব্বিরকে জিজ্ঞাসা করে সে সাঁতার জানে কিনা? জবাবে পাশে থেকে সাব্বিরের ছোট ভাই হৃদয় বলে, ভাবি ভাই সাঁতার জানেনা, আমরা ৩ ভাই সাঁতার জানিনা।

এর পর খাওয়া দাওয়া সেরে মেয়েকে রেখে ৩ বছরের ছেলে নিশান কে নিয়ে বাড়ি থেকে বেরুনোর সময় স্ত্রী আবারও সাব্বিরকে বলে সে কি সাঁতার জানে? জবাবে সব্বির আবারও একই কথা বলে আমরা তিন ভাই সাঁতার জানি না। এর পর তারা হরিপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। কিন্তু ভাবির এই জিজ্ঞাসা কেন কোন উদ্দেশ্যে তখনো বুঝতে পারিনি বলে কান্নায় ভেঙে পরে সুইট।

সুইট জানায়, এর পরের দিন ১১ আগষ্ট দুপুর সাড়ে ১১ টার দিকে সাব্বির তার ছোট ভাই হৃদয়কে ফোনে জানায়, শ্বশুর বাড়ির এলাকার এক কশাইকে দিয়ে তার ভাবি সাব্বির কে মার খয়াইয়েছে। তাই সাব্বির বাড়িতে চলে আসছে বলে ফোন কেটে যায়। পরে একাধিক বার তার ফোনে কল করে ফোন বন্ধ দেখায়।এর প্রায় দিই ঘন্টা পরে হটাৎ তার ভাবি বিলকিস দৌড়ে তাদের বাড়িতে ঢুকে শাশুড়ি সাব্বিরের মা সাবিয়া খাতুনকে বলে আম্মা আপনার ছেলে বড় বাজার খেয়াঘাটে মানুষের সাথে মারামারি করছে তাড়াতাড়ি চলুন। এরই মাঝে ঘটনা জানাজানি হয়ে যায় এবং খবর পেয়ে পুলিশ স্ত্রী বিলকিস কে আটক করে। পরে আটক বিলকিস কে নিয়ে আবার খেয়া ঘাট ঘটনাস্থলে যায় এবং নৌকা থেকে ফেলে দেয়া স্বামী সাব্বিরকে খোজার চেষ্টা করে।

স্থানীয়রা জানান, ঘটনার দিন সাব্বির এক প্রাকার জোরপূর্বক তার স্ত্রী বিলকিস কে নিয়ে শ্বশুর বাড়ি থেকে বেড়িয়ে পড়ে। কিছু দূরে আসতে তাদের সাথে এসে যোগ দেন শাশুড়ি ও শ্যালক। পরে তারা সবাই হরিপুর ঘাটে আসার আগে রাস্তায় স্বামী স্ত্রীর মাঝে আবার কথা কাটাকাটি হয়। ওই সময় সাব্বিরের স্ত্রীর অভিযোগে স্থানীয় এক কশাই সাব্বিরকে চড় থাপ্পড় দিলে সাব্বির কাদতে কাদতে ছেলে কে কোলে নিয়েই নৌকায় এসে উঠে বসে।

নৌকা ছাড়ার পর আবার স্বামী স্ত্রীর মধ্যে শুরু হয় বাকবিতণ্ডা। বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে স্ত্রী বিলকিস রেগে গিয়ে হটৎ দুহাতে আচমকা ধাক্কা দেয় স্বামী সাব্বির কে। এর আগে ধাক্কা দেয়ার আগের মুহুর্তে সাব্বিরের কোল থেকে ছেলে নিশান কে নিয়ে নেন তার শাশুড়ি। ধাক্কা খেয়ে স্বামী সাব্বির নৌকা থেকে ছিটকে নদীতে পরে প্রবল স্রোতের মধ্যে দুই থেকে তিন বার হাত উচু করে তলিয়ে যায়। এ ঘটনায় নৌকার অন্যান্য যাত্রীরা হতভাগ হয়ে যায়।

নৌকাটি কয়েক মিনিটের মধ্যে বড় বাজার খেয়া ঘাটে এসে পৌছায়। এ সময় নৌকার অন্যন্য যাত্রীরা সাব্বিরের স্ত্রীকে আটকানো চেষ্টা করলে সে নৌকা থেকে নেমেই দৌড়ে পালিয়ে যায়। কিছুক্ষন পর পুলিশ ও সাব্বিরের মা সহ খেয়াঘাট এলাকায় ফিরে আসে।

সাব্বিরের লাশ উদ্ধারের পর ময়না তদন্ত শেষে লাশ দাফন সম্পন্ন হয়েছে। বর্তমানে স্ত্রী বিলকিস পুলিশে আটক হয়ে জেলহাজতে আছেন। তার সাথেই রয়েছে ৫ বছরের মেয়ে নিভিয়া ও ৩ বছরের ছেলে নিশান। বিচারে স্ত্রী বিলকিসের কি হবে সে প্রশ্ন থেকে আরেক প্রশ্ন জাগতেই পারে সেটা হলো হলো মায়ের সাথেই বিনা বিচারে জেলখাটছেন নিরপরাধ দুটি শিশু! তাদের কি অপরাধ ??

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

কুষ্টিয়ায় স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে হোটেলে, কলেজছাত্রীর মৃত্যুর পর যুবক আটক

কুষ্টিয়ায় একটি আবাসিক হোটেলে শয্যা বিশ্বাস (১৮) নামে এক কলেজছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায়...