Monday, April 22, 2024
প্রচ্ছদকুষ্টিয়াঅপরাধকুষ্টিয়ায় প্রেসক্রিপশন ছাড়াই ফার্মেসীতে বিক্রি হচ্ছে নেশা জাতীয় ঔষুধ!

কুষ্টিয়ায় প্রেসক্রিপশন ছাড়াই ফার্মেসীতে বিক্রি হচ্ছে নেশা জাতীয় ঔষুধ!

Published on

মাদক নেশায় যোগ হয়েছে চেতনানাশক ট্যাবলেট, ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্র ছাড়াই মিলছে ঘুমের ঔষধ। দেশের মেধাবী যুবকদের ধ্বংস করতে উঠেপড়ে লেগেছে এক শ্রেণির কুচক্রী মহল। এই কুচক্রী মহলটির চোখ পড়েছে উঠতি বয়সী মেধাবী শিক্ষার্থীদের ওপর। প্রশাসন মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে থাকায় এই কুচক্রী মহলটি বেছে নিয়েছে ঠাণ্ডা জনিত রোগের সিরাপ, ব্যাথানাশক ও ঘুমের ঔষুধ।এই ওষুধগুলোকে মিশ্রণের মাধ্যমে তৈরি করছে ভুলাদানা, ঝাটকা, ফুটুস নামক মাদক।

আজ রোববার বিকেলে কুষ্টিয়া রেণউইক বিনোদন পার্ক ও রিসোর্টে গিয়ে দেখা মিলল দুই জন যুবকের। তাদের অঙ্গভঙ্গি ছিল সম্পূর্ণ আলাদা। কাছে গিয়ে জানা গেল তারা ভুলাদানা নামক নেশায় আসক্ত। দুজন যুবক ই কুষ্টিয়া পলিটেকনিক থেকে ডিপ্লোমা কমপ্লিট করেছে। আর এরা দুজনই ব্রিলিয়ান্ট ছাত্র।

একজন এসএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছিল। বিভিন্ন হতাশা থেকেই তারা এ নেশায় আসক্ত হয়েছে বলে আমাদেরকে জানান। ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্র ছাড়া কিভাবে এই ঔষধগুলো কিনলেন জানতে চাইলে তিনি বলেন আমাদের ব্যবস্থাপত্রের প্রয়োজন হয় না। একটু বেশি দাম দিলে ফার্মেসি মালিকরা আমাদের কাছে ওইসব ঔষধ বিক্রয় করেন। আজ সকালে কুষ্টিয়া হাসপাতাল মোড় রাসেল ফার্মেসি থেকে ব্যবস্থাপত্র ছাড়াই এই ঔষধ ক্রয় করেছে বলেও জানান তিনি।

কুষ্টিয়া শহর সহ গ্রামের অলিতে গলিতে ফার্মেসী গুলোতে চলছে প্রেসক্রিপশন ছাড়া ঘুমের ঔষধ বিক্রির রমরমা ব্যবসা। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী ঔষধ বিক্রির অন্তরালে নেশাজাতীয় ইনজেকশন ও ঘুমের ট্যাবলেট বিক্রয় করছে অধিক মুনাফা লাভের আশায়।ইয়াবা, হেরোইন, ফেনসিডিল, গাঁজার পাশাপাশি এবার নেশার রাজ্যে যুক্ত হয়েছে ঘুমের ট্যাবলেট। বিভিন্ন ধরণের ঘুমের ট্যাবলেট মাদক সেবীদের কাছে দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে নেশার ক্ষেত্রে।

আইন শৃঙ্খলাবাহিনী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো ট্রলারেন্স ঘোষনার পর থেকে মাদক সেবীরা মাদকের বিকল্প হিসেবে ঝুঁকে পড়েছে বিভিন্ন কোম্পানীর ঘুমের ট্যাবলেটের উপরে। হাত বাড়ালেই ঔষুধের ফার্মেসী গুলোতে অনায়াসে মিলছে ঘুমের ট্যাবলেট। কুষ্টিয়া সহ কুষ্টিয়ার পাশ্ববর্তী অঞ্চলে লাইসেন্সবিহীন এবং লাইসেন্সধারী ফার্মেসীতে বিক্রি হচ্ছে ঘুমের ট্যাবলেট। সরকারী নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে দেশের নামী দামী বিভিন্ন কোম্পানীর ঘুমের ট্যাবলেট বিক্রয় করছে ফার্মেসীগুলো।

যদিও সরকারি নীতিমালায় ঘুমের ঔষধ বিক্রির ক্ষেত্রে, ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্র প্রয়োজন। কিন্তু কুষ্টিয়ার ফার্মেসী গুলোতে ঘুমের ঔষধ বিক্রি হচ্ছে ডা. এর ব্যবস্থাপত্র ছাড়াই। যার ফলে মাদকসেবীরা খুব সহজেই মাদকের পরিবর্তে ঘুমের ট্যাবলেটকে নতুন মাদকরুপে সেবন করছে। ঘুমের ট্যাবলেটের মধ্যে রয়েছে সিরামিন সিরাপ ইবনেসিনা কোম্পানী, স্কয়ার লাইজন এএমজি, সেডিল ২০ পিস ৫এমজি, ট্রাইপট্রিন ১০/২৫এমপি, ডরমিটল ৭.৫/১৫ এমজি, রেডিএন্ট কোম্পানীর এবং ল্যাগজুটেনিল ৩এমজি, অরিউন কোম্পানীর গোফাম ৩ এমজি, সেনডোজ কোম্পানীর এক্সিউনিল ৩এমজি, অপসোনিন কোম্পানীর ইজিয়াম ৫এমজি পেইস ২এমজি, ইনসেপটা কোম্পানীর হাইফনোফাস্ট ১৫এমজি, ডিসোপান ২এমজি, ক্লোসান ২এমজি, এসকেএফ কোম্পানীর মিলাম ১৫এমজি এই সব ওষুধের সাথে মেশানো হচ্ছে ব্যথানাশক ঔষধ এসকেএফ এর টাপেন্টা, স্কয়ারের পেন্টাডল কাশির সিরাপ ফেনারগান সহ কয়েকটি সিরাপ।

এগুলো এখন উঠতি বয়স্ক তরুন-তরুনীদের মাঝে আকর্ষনীয় আসক্তির বস্তু হয়ে দাড়িয়েছে। রাত বাড়ার সাথে সাথে কুষ্টিয়ার ফার্মেসীগুলোর সামনে উঠতি বয়স্ক তরুনদের আনাগোনা বাড়তে থাকে। এইসব ঘুমের ঔষধ গুরুতর অসুস্থ্য, দুর্ঘটনার আহত ও দুশ্চিন্তাগ্রস্থ লোকজনের ঘুমের জন্য ডাক্তারের পরামর্শে ব্যবহার করা হয়। আর ব্যথানাশক ঔষধ টাপেন্টা তীব্র ব্যথা হলে ব্যবস্থাপত্রে লিখে থাকে বলে ডাক্তারদের কাছ থেকে জানা যায়। ফেনারগান সিরাপ ঠান্ডা জনিত কারণে ব্যবস্থা পত্রে লিখে থাকে।

এইসব ঔষধ ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্র ছাড়া বিক্রি নিষিদ্ধ হলেও অতি মুনাফার আশায় বিক্রি করছে কিছু অসাধু ঔষধ ব্যবসায়ীরা। আর সুযোগ নিচ্ছে মাদকসেবীরা। বিপথগামী স্কুল পড়ুয়া ছাত্র থেকে শুরু করে কলেজ পড়ুয়া তরুণ সমাজ আজ ধ্বংসের মুখে পতিত হচ্ছে মাদকরুপী ঘুমের ঔষধের কারনে। প্রেসক্রিপশন ছাড়া ফার্মেসি গুলোতে এমন অবাধ উত্তেজক ট্যাবলেট ও সিরাপ বিক্রি হওয়ায় সচেতন মহল ও অভিভাবকদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। সচেতন মহলের দাবী ফার্মেসি গুলোতে ওষুধ বিক্রির ক্ষেত্রে ঔষধ নীতিমালার আওতায় আনার যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া হোক ।

২৫০ শয্যা বিশিষ্ট কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার তাপস কুমার সরকারের সাথে কথা বলে জানা যায়, এ জাতীয় ঔষধ গুলো অধিক মাত্রায় সেবন করলে কিডনি ও লিভারের সমস্যা হয়। এই ওষুধগুলো প্রেসক্রিপশন ছাড়া বিক্রয় করা নিষিদ্ধ থাকলেও কিছু ফার্মেসি মালিক অধিক মুনাফার লোভে এই ওষুধগুলো বিক্রয় করে থাকে। আর এসব ওষুধ খেয়েই নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়ছে উঠতি বয়সী যুবকেরা।

কুষ্টিয়া ড্রাগ সুপার আরিফুর রহমান এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ইতিমধ্যে আমরা ব্যবস্থাপত্র ছাড়া ঔষধ বিক্রয়ের অপরাধে রাসেল ফার্মেসি সহ কয়েকটি ফার্মেসি কে মোবাইল কোট করে জরিমানা করেছে। এরপরেও যদি বিক্রয় করে তবে আমরা কি করতে পারি প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন তিনি? তিনি আরো বলেন প্রশাসন চাইলেই আমরা সব ধরনের সহযোগিতা করব। আমি শুধু প্রসিকিউশন দেয়ার মালিক আইনগত ব্যবস্থা প্রশাসনকেই নিতে হবে।

এদিকে এসব বিষয়ে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাত, পিপিএম এর মুঠোফোনের কথা বললে, তিনি বলেন ঔষধ প্রশাসনই এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারে। ঔষধ প্রশাসন চাইলে আমরা তাদেরকে সব ধরনের সহযোগিতা করব। আমার জেলায় কোন মাদকেরই ঠাই হবে না বলেও জানান তিনি।

এদিকে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেন এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এসব বিষয়ে ড্রাগ সুপার আমাকে কখনো কোনো কথা বলেনি। আমি আগামীকালই এই বিষয়গুলো দেখে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

এদিকে সচেতন মহলের দাবি ড্রাগ সুপারের গাফিলতির কারণেই ব্যবস্থাপত্র ছাড়াই এ জাতীয় ঔষধ বিক্রয় করে ফার্মেসিগুলো। যদি ড্রাগ সুপার এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিত তাহলে এমন দুঃসাহস দেখানোর সাহস পেত না ফার্মেসির মালিকরা।

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

কুষ্টিয়ায় ফিটকারী, রঙ, সোডা, হাইড্রোজ দিয়ে তৈরি হচ্ছে গুড় | ব্যবস্থাপকের কারাদণ্ড

কুষ্টিয়ার খোকসায় আখেঁর গুড়ের সঙ্গে মানব দেহের জন্য ক্ষতিকারক ফিটকারী, রঙ, সোডা, হাইড্রোজ ও...

ভারতীয় সিরিয়াল ‘সিআইডি’ দেখে কুষ্টিয়ার ফুল ব্যবসায়ী আবু তৈয়ব হত্যার পরিকল্পনা

কুষ্টিয়ার মিরপুরে ফুল ব্যবসায়ী আবু তৈয়ব (৫৪) হত্যার পর দ্রুততার সাথে রহস্য উদঘাটন করেছে...

কুষ্টিয়া দৌলতপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় বৃদ্ধ নিহত

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় সরোয়ার মালিথা (৭০) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায়...