Wednesday, February 1, 2023
প্রচ্ছদকুষ্টিয়াকুমারখালীকুষ্টিয়ায় পদ্মা নদীর ভাঙনে রবীন্দ্র কুঠিবাড়িসহ হুমকিতে ৬ গ্রাম

কুষ্টিয়ায় পদ্মা নদীর ভাঙনে রবীন্দ্র কুঠিবাড়িসহ হুমকিতে ৬ গ্রাম

Published on

বর্ষা মৌসুম শুরুতেই এবার পদ্মার নদীর পাড় ভাঙ্গতে শুরু করেছে। কুষ্টিয়ার কুমারখালীর শিলাইদহ ইউনিয়নের কোমরকান্দি এলাকায় পদ্মার অব্যাহত ভাঙ্গনে হুমকিতে পড়েছে কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিধন্য শিলাইদহের কুঠিবাড়ীসহ ৬ টি গ্রাম। এরআগে নদী ভাঙ্গনরোধে দুই’শ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪ কিলোমিটার প্রতিরক্ষা বাঁধ নির্মাণ করা হলেও এখনো দেড় কিলোমিটার বাঁধ নির্মাণ না হওয়ায় কুঠিবাড়ীসহ ছয়টি গ্রাম পড়েছে ভাঙন ঝুঁকিতে।

সরেজমিন খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বর্ষার শুরুতেই প্রমত্তা পদ্মার পানি প্রবাহ বেড়ে যাওয়ায় হঠাৎ ভাঙ্গছে নদীর পাড়। এর আগে নদী ভাঙ্গন প্রবণ এলাকা চিহ্নিত করে চার কিলোমিটার প্রতিরক্ষা বাঁধ নির্মাণ করা হলেও এখনো দেড় কিলোমিটার নদী তীর সংরক্ষণ কাজ বাস্তবায়ন হয়নি। ফলে শিলাইদহ ইউনিয়নের কোমরকান্দি গ্রাম থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার নদী তীর অব্যাহতভাবে ভাঙ্গছে। নদী তীরবর্তী কোমরকান্দি গ্রামের জালাল সর্দারের বাড়ি থেকে জলিল প্রামাণিকের বাড়ি পর্যন্ত বাঁধ ধ্বসে পড়ছে।

এদিকে নদী ভাঙ্গনে বসত-বাড়িসহ ফসলি জমি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার শঙ্কায় কুমারখালীর কোমরকান্দিসহ পাশাপাশি ৫/৬টি গ্রামের মানুষের দিন কাটছে। এছাড়া এখনো দেড় কিলোমিটার জুড়ে নদী তীর সংরক্ষণ ও বাঁধ নির্মাণ না হওয়ায় রবীন্দ্র কুঠিবাড়িও রয়েছে ভাঙ্গন ঝুঁকিতে। ভাঙ্গন ঝুঁকি থেকে কুঠিবাড়ি রক্ষায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের স্থানীয় কর্তৃপক্ষের যেন নেই কোন উদ্যোগ ও তৎপরতা।

কোমরকান্দি গ্রামের বাসিন্দা আব্দুর রশিদ জানান, পদ্মা নদীর ভাঙনে বসতবাড়ি কয়েকবার স্থানান্তর করেছি। এবারের ভাঙন নিয়েও এলাকাবাসী রয়েছেন শঙ্কায়। ভাঙনরোধে জলদি নদী তীর সংরক্ষণসহ প্রতিরক্ষা বাঁধ নির্মাণের দাবী করেন তিনি।

শিলাইদহ ইউপি চেয়ারম্যান মো: সালাহ্উদ্দিন তারেক জানান, নদী ভাঙনরোধে তড়িৎ পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে শিলাইদহের ৫/৬টি গ্রামের বসতবাড়িসহ ফসলি জমি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নদী গর্ভে বিলীনের আশঙ্কা করা হচ্ছে। পাশাপাশি ঐতিহ্যমন্ডিত রবীন্দ্র কুঠিবাড়ীও ঝুঁকিতে পড়বে বলে তিনি জানান। এদিকে ভাঙ্গনরোধে দুই’শ কোটি টাকা ব্যয়ে পদ্মার তীর সংরক্ষণ ও বাঁধ নির্মাণ করা হলেও কোমরকান্দি গ্রাম দেড় কিলোমিটার অংশে প্রতিরক্ষা বাঁধ নির্মাণ না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজীবুল ইসলাম খান জানান, ভাঙ্গন প্রবণ নদী তীরবর্তী এলাকা পরিদর্শন করেছি। ভাঙনরোধে উদ্যোগ ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডেকে জানানো হয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড কুষ্টিয়ার নির্বাহী প্রকৌশলী পীযূষ কৃষ্ণ কুন্ডু শিলাইদহের কোমরকান্দি এলাকার নদী তীর ভাঙ্গনের সত্যতা স্বীকার করে জানান, বর্ষায় প্রতি বছরই নদী তীর ভাঙ্গছে। এবার আগাম ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। তবে ভাঙনরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

ব্রাজিলের পতাকা টাঙাতে গিয়ে কুষ্টিয়ার মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সুপারি গাছে ব্রাজিলের পতাকা টাঙাতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে মিঠু শেখ (১৪) নামে...

কুষ্টিয়া কুমারখালী | পোড়া কয়লা বিক্রি করে ভাগ্য বদল, মাসে আয় দুই লাখ

জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হয় বিভিন্ন গাছের কাঠ। এই কাঠ পুড়েই হয় কয়লা। আর...