Monday, April 22, 2024
প্রচ্ছদকুষ্টিয়াকুমারখালীকুমারখালী যদুবয়রা গোবিন্দপুর বিদ্যালয়ের সততা স্টোরে চুরি

কুমারখালী যদুবয়রা গোবিন্দপুর বিদ্যালয়ের সততা স্টোরে চুরি

Published on

শিক্ষার্থীদের মাঝে নৈতিক শিক্ষাচর্চা, স্বাস্থ্যকর খাবার, ঝুঁকি হ্রাসের মতো বেশকিছু মহৎ উদ্দেশ্য নিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে গড়ে তোলা হয়েছে সততা স্টোর বা সততার দোকান। যেখানে থাকে না কোনো দোকানি। পণ্যের গায়ে লেখা মূল্য দেখেই পছন্দের পণ্য নিয়ে সততার স্টোরের বক্সে টাকা রাখবে শিক্ষার্থীরা। এতে একদিকে যেমন তাদের মাঝে নৈতিকতা চর্চা হবে, অন্যদিকে প্রতিষ্ঠানের বাইরের নানা প্রতিকূলতা থেকে রক্ষা পাবে শিক্ষার্থীরা। 

কিন্তু এই স্টলের কারণে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্তসহ নানা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আশেপাশে অবস্থিত ছোট-বড় মুদি দোকানসহ চটপটি ও ফুসকার দোকানগুলো। ফলে ক্ষতিগ্রস্ত দোকানিরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সততা স্টোরগুলো উচ্ছেদ করার জন্য নানা ষড়যন্ত্র করছে। সততা স্টোরে চুরি, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সাথে বিরূপ আচরণসহ নানা ঘটনার জন্ম দিচ্ছে দোকানিরা। 

এমন এক ঘটনার খবর পাওয়া গেছে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার গোবিন্দপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সততার স্টোরে। 

মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) সকালে সরেজমিন গিয়ে জানা যায়, বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে প্রায় চার মাস পূর্বে গড়ে তোলা হয়েছে সততা স্টোর। যেখানে রয়েছে কাগজ, কলম, চকলেট, কেক, বিস্কুটসহ প্রায় ১২ রকমের পণ্য। ঐ রুমেই থাকে বিদ্যালয়ে ব্যবহৃত ল্যাপটপ, প্রজেক্টর, ড্রামসেটসহ সকল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও সরঞ্জাম। 

কিন্তু সোমবার (২ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে দুর্বৃত্তরা বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষের তালা ভেঙে শুধু সততা স্টলের মালামাল চুরি ও ভাঙচুর করেছে। তবে সন্দেহের তীর ছুটেছে বিদ্যালয় চত্বরে থাকা মুদি দোকানি আফাজ উদ্দিনের দিকে।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আ শ ম সরোয়ার জানান, কে বা কারা রাতে অফিস কক্ষের তালা ভেঙে সততার স্টোরে চুরি ও ভাঙচুর করেছে। তবে অফিস কক্ষে থাকা ল্যাপটপ, প্রজেক্টরসহ নানা প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রাদি অক্ষত রয়েছে। 

তিনি আরও জানান, পূর্ব শত্রুতা করে বিদ্যালয় চত্বরে থাকা দোকানি এ কাজ করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

তবে বিদ্যালয় চত্বরের দোকানি আফাজ ঘটনাটি সম্পূর্ণ অস্বীকার করে জানান, স্থানীয় ছেলেপেলে শয়তানি করে এ কাজ করতে পারে। বিদ্যালয়ে সততা স্টোর গড়ে ওঠার আগে প্রতিদিন ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা আয় হলেও বর্তমানে ১০০ থেকে ১৫০ টাকা হয়।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. জালাল উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, শত্রুতা করে অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে কেউ এ কাজ করেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হবে।

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

ব্রাজিলের পতাকা টাঙাতে গিয়ে কুষ্টিয়ার মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সুপারি গাছে ব্রাজিলের পতাকা টাঙাতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে মিঠু শেখ (১৪) নামে...

কুষ্টিয়া কুমারখালী | পোড়া কয়লা বিক্রি করে ভাগ্য বদল, মাসে আয় দুই লাখ

জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হয় বিভিন্ন গাছের কাঠ। এই কাঠ পুড়েই হয় কয়লা। আর...