Wednesday, July 24, 2024
প্রচ্ছদশিক্ষাশিক্ষাঙ্গনআবারও ইবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ধাওয়া খেয়ে ক্যাম্পাস ছাড়লেন

আবারও ইবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ধাওয়া খেয়ে ক্যাম্পাস ছাড়লেন

Published on

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলামকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করার পরেও দলীয় টেন্টে আসায় তাঁকে ফের ধাওয়া দিয়েছেন ছাত্রলীগের বড় একটি অংশের নেতা-কর্মীরা। আজ সোমবার বিকেল চারটার দিকে ক্যাম্পাসে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে ছাত্রলীগের আন্দোলনের মুখে গতকাল রোববার রাতে প্রক্টর মাহবুবর রহমানকে অব্যাহতি দিয়ে নতুন প্রক্টর নিয়োগ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল ইসলাম আজ মাস্টার্স দ্বিতীয় সেমিস্টারের পরীক্ষা দিতে ক্যাম্পাসে আসেন। পরীক্ষা শেষে দলীয় টেন্টে যান তিনি। এ সময় সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী ইলিয়াস জোয়ার্দার, রাসেল জোয়ার্দারসহ বেশ কয়েকজন বহিরাগত উপস্থিত ছিলেন।

রাকিবুল দলীয় টেন্টে বসার বিষয়টি জানতে পেরে আন্দোলনকারী ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা ক্যাম্পাসের জিয়া হল মোড় এলাকায় জড়ো হন। পরে তাঁরা রাকিবুলকে ধাওয়া দেন। এ সময় রাকিবুল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে চলে যান। সেখানেও মিছিল নিয়ে যান আন্দোলনকারীরা।

খবর পেয়ে ক্যাম্পাস ছেড়ে চলে যান রাকিবুল। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এরপর ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করে ক্যাম্পাসকে বহিরাগতমুক্ত করতে ও শিক্ষক-কর্মকর্তা বা কর্মচারীদের হস্তক্ষেপ বন্ধ করার দাবি জানান।

রাকিবুল ইসলাম বলেন, ‘পরীক্ষা দিতে ক্যাম্পাসে গিয়েছিলাম। পরীক্ষা শেষে টেন্টে কিছুক্ষণ অবস্থান করেই কুষ্টিয়া চলে এসেছি। পরে কী হয়েছে আমার জানা নেই।’

গত শুক্রবার রাকিবুল ইসলাম ক্যাম্পাসে এলে তাঁকে ধাওয়া দিয়ে বের করে দেওয়া হয়। সেদিনও তাঁর বিরুদ্ধে বহিরাগত নিয়ে ক্যাম্পাসে আসার অভিযোগ তোলেন নিজ দলের নেতা-কর্মীরা। এর আগে ৪০ লাখ টাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদকের পদ বাগিয়ে নেওয়ার বিষয়ে অডিও ফাঁস হলে তাঁকে ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়।

এ সময় উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, ‘আমরাও বহিরাগতমুক্ত ক্যাম্পাস চাই। এ বিষয়ে তোমরা প্রক্টরকে সাহায্য কর। এছাড়া ছাত্রলীগের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগপ্রাপ্ত কোনো কর্মচারী জড়িত থাকলে বিষয়টি আমি দেখব।’

এ বিষয়ে সদ্য যোগদান করা প্রক্টর পরেশ চন্দ্র বর্মণ বলেন, ‘ঘটনার সময় মিটিংয়ে ছিলাম। পরিবেশ আপাতত শান্ত রয়েছে।’ সকালে প্রক্টর হিসেবে যোগদান করেন পরেশ চন্দ্র বর্মণ। তিনি ছাত্র উপদেষ্টা। কাজের অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে সাময়িকভাবে প্রক্টরের দায়িত্ব দিয়েছে প্রশাসন। গতকাল রাতে মাহবুবরকে প্রক্টরের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয় কর্তৃপক্ষ।

জানতে চাইলে পরেশ চন্দ্র বর্মণ বলেন, ‘সাময়িক দায়িত্ব এটা। তারপরও আমার প্রধান কাজ হবে বর্তমান পরিস্থিতি শান্ত করা। এ জন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। যেহেতু ক্যাম্পাস জন্মলগ্ন থেকে এখানে বহিরাগতদের একটা প্রভাব আছে, সে জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বাদেও দুই জেলার কর্তাব্যক্তিদের সহযোগিতা প্রয়োজন।’

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৭

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার পর সংঘর্ষে জড়িয়ে অন্তত সাতজন...

কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি, বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষককে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর)...

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে...

পাসপোর্ট সংশোধনে সরকারের নতুন নির্দেশনা

এনআইডির তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট রি-ইস্যুর নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাসপোর্ট...

আরও পড়ুন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে একাধিক পদে চাকরি

সম্প্রতি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া। প্রতিষ্ঠানটি ১৪ ক্যাটাগরির একাধিক পদে লোকবল...

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে পাইলিংয়ের সময় ক্রেন ছিড়ে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) নির্মাণাধীন দ্বিতীয় প্রশাসন ভবনের পাশে পাইলিংয়ের সময় মাথার আঘাত পেয়ে দুর্ঘটনাবশত...

বর্ণাঢ্য আয়োজনে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে ৪৪তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) দিবস উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে...